GST Preliminary Result 2021: ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে GST (General, Science & Technology) গুচ্ছভুক্ত ২০ টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা ফলাফল gstadmission.ac.bd ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

প্রাথমিক ভাবে আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে ইউনিট ভিত্তিক চূড়ান্ত আবেদনের জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হবে।

প্রসপেক্টাস উল্লেখিত মানদন্ড ক্রমানুসারে (১ হতে ৬) ব্যবহার করে প্রাথমিক আবেদনকারীদের তালিকা প্রস্তুত করা হবে। প্রতিটি ইউনিটে নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। প্রতিটি ইউনিট থেকে প্রায় ১৫০০০০ শিক্ষার্থী নির্বাচিত হবে।

নির্ধারিত সময়ে চূড়ান্ত আবেদন সম্পন্ন করতে হবে। অন্যথায় পরবর্তী তালিকা হতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত আবেদনের সুযোগ দেওয়া হবে।

প্রাথমিক আবেদনকারীদের মধ্যে মেধার ভিত্তিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য শিক্ষার্থীদের ফলাফল এবং চূড়ান্ত আবেদনের সময়সীমা ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আছে।

প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল
(GST Preliminary Admission Result):

লকডাউনের কারনে সময়সূচী পরিবর্তন করা হয়েছে এবং পরবর্তীতে জানানো হবে।

সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন ফলাফল মে, ২০২১ এ প্রকাশিত হবে।

বিজ্ঞান, বাণিজ্য, কলা ইউনিটের জন্য আলাদা তালিকা থাকবে। প্রতিটি ইউনিট থেকে কেবল ১৫০০০০ প্রার্থী চূড়ান্ত আবেদনের জন্য তালিকাভুক্ত হবে

How to Get GST Preliminary Result 2020-21:

প্রাথমিক আবেদন সফলভাবে সম্পন্নকারী আবেদনকারীরা GST অফিসিয়াল ওয়েবসাইট (gstadmission.ac.bd) থেকে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল দেখতে পারে।

GST Final Admission Result:

প্রতিটি ইউনিটের ফলাফল GST গুচ্ছভুক্ত সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইট (gstadmission.ac.bd)-এ প্রকাশ করা হবে।

গুচ্ছভুক্ত প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় আলাদা ভাবে ভর্তি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিজেদের শর্ত উল্লেখসহ দরখাস্ত আহবান করবে।

শুধুমাত্র GST গুচ্ছভুক্ত সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরাই যোগ্যতা থাকা সাপেক্ষে নির্ধারিত বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে পারবে।

ইউনিট ভিত্তিক মেধাক্রম অনুসারে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজ নিজ ব্যবস্থাপনায় ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে।

ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত যে কোন বিষয়ে “এ গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের সমন্বিত ভর্তি কমিটি (২০২০-২০২১)র সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে।